ক্ষমা চাইলেন মেহের আফরোজ শাওন





শেয়ার

বিনোদন ডেস্কঃ ঈদুল আজহায় প্রকাশ হওয়া বিশেষ নাটক ‘ঘটনা সত্য’ নিয়ে তোলপাড় নাটকপাড়া। শুরুটা হয়েছিল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে থেকে। রুবেল হাসানের পরিচালনায় নাটকটিতে জুটিবদ্ধ হয়েছিলেন আফরান নিশো ও মেহজাবীন চৌধুরী।

নাটকের গল্পে দেখা গেছে, মুকুল ও বিলকিছ পাশাপাশি দুই ফ্ল্যাটের গাড়ির চালক ও গৃহকর্মী। তারা সব সময় এটা সেটা চুরি করে, কাজে ফাঁকি দেয়, মিথ্যা বলে! এতে মালিক পক্ষ নানাভাবে হয়রানির শিকার হয়। বিলকিছ বাজার থেকে সস্তা ও পচা সবজি কিনে আনে, ফ্রিজে রাখা খাবার এঁটো করে রাখে, বাসায় রাখা অন্যের কসমেটিকস নিজে ইচ্ছেমতো ব্যবহার করে, অপচয় করে। অন্যদিকে মুকুল মিথ্যা বলে, ডিউটি বাদ দিয়ে অন্যত্র যাত্রী বহন করে, লুকিয়ে গাড়ির তেল বিক্রি করে।

২৪ জুলাই নাটকটি প্রকাশের পর শুরু হয় আলোচনা-সমালোচনা। নাটকটির মাধ্যমে ভুল তথ্য দেওয়া হয়েছে বলে দাবি তুলেছেন অনেকে। আনুষ্ঠানিক প্রতিবাদ জানায় চাইল্ড ফাউন্ডেশনসহ দেশ-বিদেশের অসংখ্য দর্শক। নেটমাধ্যমে এটি নিয়ে লেখালেখি শুরু হলে টনক নড়ে সংশ্লিষ্টদের। অভিযোগটির সঙ্গে একমত পোষণ করেছেন তারা। দুঃখ প্রকাশ করে নাটকটি সরিয়ে নিয়েছেন তারা। এবার সে নাটককে ঘিরে হাত জোড় করে ক্ষমা চেয়েছেন অভিনেত্রী মেহের আফরোজ শাওন। নিজের ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে ক্ষমা চেয়েছেন তিনি। লিখেছেন, ‘আমি মেহের আফরোজ শাওন। বাংলাদেশ মিডিয়া জগতের একজন অভিনয় শিল্পী, পরিচালক এবং প্রযোজক হিসেবে সম্প্রতি প্রচারিত ‘ঘটনা সত্য’ নামক অসংবেদনশীল নাটকটির জন্য আমার পরিচিত-অপরিচিত সকল বিশেষ শিশুদের কাছে এবং তাদের মা বাবার কাছে হাত জোড় করে ক্ষমা চাচ্ছি। শিল্পী হওয়া তো দূরের কথা, ভিউ আর ফলোয়ারের পেছনে দৌঁড়াতে দৌঁড়াতে আমরা বোধহয় মানুষও হতে পারলাম না!’ এদিকে নাটকটি নিয়ে সমালোচনা চোখে পড়েছে নিশো-মেহজাবীনের। নিজেদের ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে তারাও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। নাটকটির প্রযোজক এসকে সাহেদ আলী পাপ্পুও অনাকাঙ্ক্ষিত এ ভুলের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন। নিশো-মেহজাবীন লিখেছেন, ‘প্রত্যেক বাবা-মা ও সন্তানের প্রতি আমাদের ভালোবাসা জানাই। সেই সাথে, ভবিষ্যতে এমন নাটক করার প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি, যা সঠিক বার্তা সমাজে ছড়িয়ে দেয় এবং দর্শকদের সঠিক পথে পরিচালিত করে। পুরো কাজটির সঙ্গে জড়িত সবার পক্ষ থেকে আমরা দুঃখ প্রকাশ করছি এবং ক্ষমা চাইছি।’

বিনোদন


শেয়ার