রোনালদোর পর্তুগালের কাছে গোহারা হারলেন ইসরাইল।





শেয়ার

 

১০ জুন রাত ১২ টা ৪৫ মিনিটে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে ইসরাইলের বিপক্ষে মাঠে নামে রোনালদোর পর্তুগাল। চার শূন্য গোলে ইসরাইলকে উড়িয়ে দিলো পর্তুগাল।

ম্যাচ শুরুর প্রথম থেকে ইসরাইলের রক্ষণভাগ দখলে রাখেন রোনালদোরা সবাই ভেবেছিল হয়ত প্রথমার্ধ গোল শূন্য ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়বে দুই দল কিন্তু, তা হতে দেননি পর্তুগালের ব্রুনো ফার্নান্ডেজ।

৪২ মিনিটে দলকে ১-০ গোলে এগিয়ে দেন ফার্নান্ডেজ। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের এই ফুটবলার বাঁ দিক থেকে কোনাকুনিভাবে একটা নিচু শটে বল বিপক্ষের জালে জড়িয়ে দেন। এরপর চোখের পলক পড়তে না পড়তেই দ্বিতীয় গোল করে পর্তুগাল। এবার গোলদাতা অবশ্যই ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। ৪৪ মিনিটে সিআর সেভেনের বাঁ পায়ের জোরালো শট আটকাতে পারেননি ইজরায়েলের গোলরক্ষক মার্সিয়ানো। শেষ হয় প্রথমার্ধের খেলা।

দ্বিতীয়ার্ধে দুটো দলেই বেশ কয়েকটা পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায়। কিন্তু,  ইসরাইলের গোলের সরণীতে ফিরতে পারেনি। উল্টো পর্তুগাল দ্বিতীয়ার্ধেও আরও দুটো গোল করে ফেলে। ৮৬ মিনিটে অসাধারণ একটা গোল করলেন ক্যানসেলো। ৩-০ গোলে এগিয়ে গেল পর্তুগাল। ম্যানচেস্টার সিটির এই তারকার অসাধারণ একটা বাঁকানো শট মার্সিয়ানোকে পরাস্ত করে। বাঁ দিক থেকে যেভাবে রকেটের গতিতে বলটা ঢুকল, তাতে মার্সিয়ানোর খুব একটা বেশি কিছু করারও ছিল না।

নির্ধারিত ৯০ মিনিটের পর আরও ২ মিনিট অতিরিক্ত দেওয়া হয়। ৯১ মিনিটে ইসরাইলের কফিনে শেষ পেরেকটি পুঁতে দিলেন সেই ফার্নান্ডেজ। বক্সের ঠিক কিনারায় তিনি বলটি পান। তারপর ডান পায়ের অসাধারণ একটা শটে তিনি দলের ব্যবধান ৪-০ করে দিলেন।

বল দখলেও এগিয়ে রোনালদোরা, শতকরা ৬২% বল দখলে ছিলো তাদের পক্ষান্তরে ইসরাইলের দখলে ছিলো ৩৮%। টার্গেট শট পর্তুগাল নেন ১০টি পক্ষান্তরে ইসরাইল নেয় মাত্র একটি।

পরের সপ্তাহেই ইউরো কাপে পর্তুগাল তাদের প্রথম ম্যাচ খেলতে নামবে। তার আগে এই জয় যে অনেকটাই আত্মবিশ্বাস জোগাবে, তা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই।

 

ইসমাইল হোসেন নয়ন/দেশ-বিদেশ২৪

 

ফুটবল


শেয়ার