বৈশাখী সংঘ’র স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠান উদযাপন





শেয়ার

গত ২৬ মার্চ শুক্রবার বৈশাখী সংঘ বাঁশখালী কর্তৃক আয়োজিত হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে আলোচনা সভাসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানমালায় বক্তারা বলেছেন ‘বঙ্গবন্ধু আমাদেরকে দীর্ঘ নয় মাসের রক্তক্ষয়ী সংগ্রামের মাধ্যমে রাজনৈতিক স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন। 

 

যুদ্ধবিধ্বস্থ বাংলাদেশকে অর্থনৈতিকভাবে পুর্নগঠনের লক্ষ্যে কাজ শুরু করার প্রাক্কালে এদেশীয় কিছু রাজাকার-আলবদরের প্রেতাত্মারা তাঁকে সপরিবারে হত্যা করে ইতিহাসের চাকাকে পিছনে ঘুরিয়ে দিতে চেয়েছিল কিন্তু সৃষ্টিকর্তার অপার করুনায় বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে আজকে বাংলাদেশ অর্থনৈতিকভাবে স্বাধীনতা লাভ করেছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মুজিব আদর্শের পরিক্ষিত সৈনিক, বাঁশখালী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ২নং সাধনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, অস¤প্রদায়িক রাজনীতির বাতিঘর মহিউদ্দিন চৌধুরী খোকা। 

 

বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সাধনপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদুর রশিদ, প্যানেল চেয়ারম্যান করুনাময় ভট্টাচার্য, উপজেলা যুবলীগ নেতা মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন, ইউপি সদস্যা অপর্ণা চৌধুরী। বৈশাখী সংঘ বাঁশখালী’র সভাপতি দীপ্ত ভট্টাচার্যের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠেয় আলোচনা পর্বে বক্তারা আরো বলেন,  বাংলাদেশ বর্তমানে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে রূপান্তরিত হচ্ছে। জননেত্রী শেখ হাসিনার রূপকল্প ২০৪১ সালে বাংলাদেশ উন্নত বিশ্বের কাতারে পৌঁছাবে এ লক্ষ্যে আমাদের সকলকে স্ব স্ব অবস্থান থেকে কাজ করে যেতে হবে। 

 

চট্টগ্রাম


শেয়ার