আবারও অস্থির ডিমের বাজার





শেয়ার

আবারো অস্থির হয়ে উঠেছে ফার্মের মুরগির ডিমের বাজার। কয়েক দিনের ব্যবধানে খুচরা বাজারে ডিমের হালি ৩৫ টাকা থেকে বেড়ে এখন ৪৮-৫২ টাকা। আর ডজন বিক্রি হচ্ছে ১৫০ টাকায়।

রাজধানীর বাড্ডা, নতুন বাজার, ভাটারার বেশকিছু এলাকার দোকান ও বাজার ঘুরে দেখা গেছে, খুচরায় প্রতিহালি ডিম বিক্রি হচ্ছে ৪৮-৫২ টাকায়, আর ডজন ১৪৫-১৫০ টাকা। 

ব্যবসায়ীরা বলছেন, টানা বৃষ্টিতে সরবরাহ সংকটে আবার দাম বেড়েছে। আবার কেউ বলছেন, মুরগির খাদ্যের উপকরণের দাম, জ্বালানি তেলের দাম এবং ডলারের দাম বেড়ে যাওয়ায় ডিমের দামে প্রভাব পরেছে। এসব কারণে যখন গত মাসে ডিমের দাম বেড়েছে, সে সময় প্রশাসনের চাপে বাধ্য হয়ে দাম কমেছিল। কিন্তু সমস্যা সমাধান না হওয়াতে আবারো বাড়ছে।

 

ডিম উৎপাদনকারী সমিতির সভাপতি তাহের আহমেদ সিদ্দিকী গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা ডিম উৎপাদন করলেও দাম নির্ধারণ করতে পারি না। আমরা তো এক টাকাও বাড়তি পাচ্ছি না। আড়তদার আর বড় বড় কোম্পানি সিন্ডিকেট করছে। তারা দিনে ৫ লাখ ডিম উৎপাদন করে। ২ টাকা দাম বাড়াতে পারলে দিনে ১০ লাখ লাভ করেন। তারাই দাম বাড়িয়েছেন বলে অভিযোগ করেন তিনি।

ঢাকার ডিমের আড়তদারদের সংগঠন তেজগাঁও বহুমুখী সমবায় সমিতির একজন প্রতিনিধি নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, প্রতিদিন সকালে করপোরেট প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতিনিধিরা দাম নির্ধারণ করেন। সেই দাম আমলে নিয়ে পাইকারি বাজারে দাম নির্ধারণ হয়। গত মাসে যারা ডিমের দাম অস্থিতিশীল করেছিল, তারাই এখন করছে। সে সময় আমরা সরকারের বিভিন্ন মহলকে সেসব কোম্পানির নাম জানিয়েছি। কিন্তু কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি এখনো।

 

অর্থ ও বাণিজ্য


শেয়ার