আজকের সর্বশেষ


সন্দ্বীপে উপনির্বাচনে মা'র উপর হামলার ঘটনায় বিচার না পেলে ছাত্রলীগ নেতার আত্মহত্যার হুমকি :থানায় মামলা





শেয়ার

মো. হাসানুজ্জামান সন্দ্বীপি

সন্দ্বীপে ২৫মে উপজেলা চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনের দিন ধার্য ছিল। ভোট দিতে যাওয়ায় রহমতপুর উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের কাছে এক মহিলার উপর হামলার ঘটনা ঘটে। এতে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন তাঁর ছেলে উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা মিনহাজ। তিনি শনিবার তাঁর ফেইসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে জানান,মায়ের উপর হামলার ঘটনায় বিচার না পেলে লাইভে এসে আত্মহত্যা করবেন। জানা যায়,মিনহাজ উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদকের দায়িত্বে আছেন।

ছাত্রলীগ নেতার পরিবার সূত্রে জানা যায়,২৫মে বৃহস্পতিবার সন্দ্বীপ উপজেলা পরিষদের উপ-নির্বাচনে রহমতপুর উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে  ভোট দিতে যান স্বপ্না বেগম। ফেরার পথে গতিরোধ করে স্থানীয় কিছু যুবক। আনারস প্রতীকে ভোট দেয়ার অভিযোগ তুলে উপর্যুপরি লাথি দেয়।এতে তিনি রাস্তায় পড়ে যান।

ছাত্রলীগ নেতা মিনহাজের স্ট্যাটাস ফেইসবুকে ছড়িয়ে পড়লে সর্বমহলে নিন্দার ঝড় ওঠে।  ২৭মে শনিবার স্বপ্না বেগমের স্বামী ও মিনহাজের বাবা মোঃ সেলিম বাদী হয়ে সন্দ্বীপ থানায় মামলা করে। মামলা নং ৭। এতে ভিডিও সুমন ও আসলামসহ অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করা হয়। সন্দ্বীপ থানার অফিসার ইনচার্জ শহীদুল ইসলাম বলেন,বিষয়টা অত্যন্ত দুঃখজনক।আমরা মামলা নিয়েছি। আসামি গ্রেফতারে  রাত থেকে অভিযান  চলছে।

প্রসঙ্গত,উপ-নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ছিলেন মাঈন উদ্দিন মিশন।অন্যদিকে আনারস প্রতীকে আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত  বিদ্রোহী প্রার্থী ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম চেয়ারম্যান।

রাজনীতি


শেয়ার

আরও পড়ুন